• Breaking News

    ইনজুরি টাইমের গোলে নাটকীয় জয় মোরিনহোর ম্যাঞ্চেস্টারের

    [caption id="attachment_1521" align="alignleft" width="300"]Man u জয়ের উৎসবে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড। ছবি— টুইটার[/caption]

    হাল সিটি-০ ‌: ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড-১

    (রাসফোর্ড ৯২’)

    চেলসি-৩ ‌: বার্নলে-০

    (হ্যাজার্ড ৯’, উইলিয়ান ৪১’, মোজেস ৮৯’)

    ওয়াটফোর্ড-১ ‌: আর্সেনাল-৩

    (ম্যাক্সিমিলিয়ানো ৫৭’) (কাজোর্লা-পেনাল্টি ৯’, সাঞ্চেজ ৪০’, ওজিল ৪৫’)

    টটেনহ্যাম-১ ‌: লিভারপুল-১

    (রোজ ৭২’) (মিলনার ৪৩’)

    লেস্টার সিটি-২ ‌: সোয়ান্সি সিটি-১

    (ভার্ডি ৩২’, মর্গ্যান ৫২’) (লেরয় ৮০’)

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক

    এক দিকে যেমন জয়ের হ্যাটট্রিক করে ফেলল হোসে মোরিনহোর ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড। অন্য দিকে তেমন জয়ে ফিরল গত বারের চ্যাম্পিয়ন লেস্টার সিটি। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের প্রথম জয় পেল আর্সেনালও।

    শনিবারের ইপিএলে চেলসি আর আর্সেনালও বড় ব্যবধানে জিতল। চেলসি ৩-০ হারাল বার্নলেকে। আর আর্সেনাল ৩-১ জয় পেল ওয়াটফোর্ডের বিরুদ্ধে। টটেনহ্যামের কাছে ১-১ আটকে গেল লিভারপুল।

    ইপিএলের তৃতীয় ম্যাচে নাটকীয় ভাবে জয় পেল মোরিনহোর ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড। হাল সিটির বিরুদ্ধে প্রায় আটকেই যাচ্ছিলেন ইব্রা-রুনিরা। সারা ম্যাচে ছিল গোল মিসের হাহাকার। সুপার-সাব ১৮ বছরের মার্কাস রাসফোর্ড তিন পয়েন্ট এনে দিলেন মোরিনহোকে।

    ৭১ মিনিটে মাতার বদলি হিসেবে নামেন রাসফোর্ড। চার মিনিটের ইনজুরি টাইম দেন রেফারি। ৯২ মিনিটে চমৎকার গোল তাঁর। রুনির ক্রস থেকে। টানা তিনটে ম্যাচ জিতে আপাতত গোল পার্থক্যে লিগ টেবলের দুইয়ে, চেলসির ঠিক পরেই।

    [caption id="attachment_1522" align="alignright" width="300"]টানা তিন ম্যাচ জিতে লিগ শীর্ষে চেলসি। ছবি— টুইটার টানা তিন ম্যাচ জিতে লিগ শীর্ষে চেলসি। ছবি— টুইটার[/caption]

    ইতালির কোচ আন্তোনিও কঁতের চেলসি অবশ্য শুরুর তিন ম্যাচেই জয় তুলে ৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবলের শীর্ষে। বার্নলের বিরুদ্ধে শুরু থেকেই আক্রমণের ঝড় তুলেছিল চেলসি। ইডেন হ্যাজার্ড দশ মিনিটের মধ্যে টিমকে ১-০ এগিয়ে দেন। বিরতির আগেই ২-০ করে চেলসি, উইলিয়ান দা সিলভার গোলে (৪১’)। দিয়েগো কোস্তার পাস থেকে। ম্যাচ শেষের ঠিক এক মিনিট আগে ভিক্টর মোজেসের তৃতীয় গোল।

    লেস্টার সিটির মতোই প্রথম জয়ের মুখ দেখল আর্সেনালও। আগের দুটো ম্যাচে হার ও ড্র। তৃতীয় ম্যাচে ৩-১ হারাল ওয়াটফোর্ডকে। বিরতিতেই তিন গোল আর্সেনালের। আর তিন গোলের পিছনেই আলেক্সি সাঞ্চেজ।

    ৯ মিনিটের মাথায় আলেক্সি সাঞ্চেজকে ফাউল করার জন্য পেনাল্টি পেয়ে যায় আর্সেন ওয়েঙ্গারের টিম। সেন্তিয়াগো কার্জোলো পেনাল্টি থেকে ১-০ করেন। আর্সেনালের ২-০ সাঞ্চেজেরই গোল থেকে। থিও ওয়ালকটের পাস থেকে। প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে তৃতীয় গোল মেসুট ওজিলের। বিরতির পর অবশ্য ওয়াটফোর্ডের ম্যাক্সিমিলিয়ানো পেরেরা ১-৩ করেন।

    লেস্টার সিটি ২-১ হারাল সোয়ান্সিকে। জেমি ভার্ডি ৩২ মিনিটে টিমকে এগিয়ে দেন। বিরতির পরই আবার ২-০ করেন ওয়েস মর্গ্যান। ৮০ মিনিটে ব্যবধান কমান সোয়ান্সি সিটির লেরয় ফের। তাতেও অবশ্য থামানো যায়নি লেস্টারকে। হার দিয়ে ইপিএল শুরু করেছিল লেস্টার। পরের ম্যাচে ড্র। সোয়ান্সিকে হারিয়ে মরসুমের প্রথম জয় পেল লেস্টার।

    No comments