• Breaking News

    শেষ পর্যন্ত লড়েই দুবারের সোনাজয়ীর কাছে হার কিদম্বির

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক

    kidambi2

    শেষরক্ষা হল না! দুর্দান্ত লড়েও বিদায় নিতে হল কিদম্বি শ্রীকান্তকে। কিন্তু শেষ দুবারের অলিম্পিক সোনাজয়ী লিন ড্যানকেও দক্ষতার শীর্ষে উঠতে হল, সেমিফাইনালে পৌঁছতে।

    প্রথম গেমে কী হয়েছিল কিদম্বি নিজেও বোধহয় বোঝেননি! ৬-২১ হার, বিশ্বের তিন নম্বরের সঙ্গে এগার নম্বরের তফাৎ দিনের আলোর মতো স্পষ্ট। ফুটবলে বলা হয়, বিরতিতেই নাকি পারিশ্রমিক আয় করেন কোচ। প্রথম আর দ্বিতীয় গেমের মাঝের বিরতিতে সেই একই কাজ করলেন পুল্লেলা গোপীচাঁদ। ড্যানের ব্যাকহ্যান্ডে টানা হাফস্ম্যাশ! পরপর পয়েন্ট তুলতে শুরু করলেন কিদম্বি, সেই মন্ত্রে। ২১-১১ জয়, ড্যানের বিরুদ্ধে, কিদম্বি নিজের খেলা দেখে পরে বিশ্বাস করতে পারবেন তো!

    তৃতীয় গেমেও চলছিল একই রকম। ১১-৮, লিড নিয়েই ব্রেক-এ যান কিদম্বি। তিন পয়েন্টে পিছিয়ে-থাকা বিপজ্জনক হতে পারত ড্যানের জন্য। কিন্তু ম্যাচ যত এগোল, অভিজ্ঞতা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিল ম্যাচের। কিদম্বির প্রথম অলিম্পিক আর ড্যানের চতুর্থ, বোঝা গেল শেষে এসে। পরপর দুবার কিদম্বির স্ম্যাশ বাইরে, দুটি পয়েন্ট পরই আরও একবার। মোট তিনটি ‘আনফোর্সড এরর’ যে-শব্দটি টেনিসের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত, পিছিয়ে দিল কিদম্বিকে। ড্যানের বরফশীতল মস্তিষ্ক খেলছে তখন, অভিজ্ঞতায়। শেষ গেম ২১-১৮ জিতে ব্যাডমিন্টনে পুরুষদের সিঙ্গলসে সোনাজয়ের হ্যাটট্রিকের লক্ষ্যে এগিয়ে গেলেন তিনের ড্যাং।

    পারুপল্লি কাশ্যপ সকালেই টুইট করেছিলেন, ব্যাডমিন্টন যদি আগে খেলা হত, ভারতীয় অ্যাথলিটদের গোটা দলকে আরও অনুপ্রাণিত করতে পারতেন শাটলাররা। পুসারলা বেঙ্কট সিঁধুর জয় আর কিদম্বি শ্রীকান্তের হার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে গেল যে-কথার সত্যতা। হারলেও ভারতকে গর্বিতই করলেন কিদম্বি, নিঃসন্দেহে। এই বিদায়ও গৌরবের।

    No comments