• Breaking News

    পদক? কুস্তি ছাড়া সম্ভাবনা নেই-ই প্রায়!

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক

    [caption id="attachment_1406" align="alignleft" width="300"]yogeshwardutt-1458378450 যোগেশ্বর কি পারবেন আবারও হাসি ফোটাতে, লন্ডনের মতো রিও-তেও, শেষ দিন?[/caption]

    দুনিয়া-কাঁপানো দশ দিন শেষ! হাতে রইল পেন্সিলের বদলে ছ’দিন। হারাধনের ১১৮ ছেলে-মেয়ের মধ্যে পড়ে রয়েছেন হাতে-গোনা কয়েকজন। ১৩০ কোটির দেশে এখন একটাই প্রশ্ন, রিও অলিম্পিক থেকে পদক কি আদৌ আসবে, একটাও?

    শেষবার এমন হয়েছিল ১৯৯২ অলিম্পিকে। শূন্যহাতে ফিরেছিলেন ভারতীয়রা। কিন্তু তখন এত বড় দল যেত না ভারতের। ১৯৯৬-তে দেশকে গর্বিত করেছিলেন লিয়েন্ডার পেজ, টেনিস সিঙ্গলসে ব্রোঞ্জ জিতে। ২০০০-এ কার্নাম মালেশ্বরী, ২০০৪-এ রাজ্যবর্ধন রাঠোড়। ২০০৮ বেজিং থেকে তিনটি পদক যার মধ্যে অভিনব বিন্দ্রার সোনা। আর ২০১২ লন্ডন থেকে মোট ৬ পদক। আশা বাড়ছিল ক্রমশ। রিও থেকে সবচেয়ে বেশি পদক আসবে, বাড়তি আগ্রহ নিয়ে টিভির সামনে বসেছিল পদকপ্রত্যাশী ভারতীয়। কিন্তু, প্রথম দশদিনে পদকপ্রাপ্তির ঘরে শুধুই শূন্য। যদিও দীপা কর্মকার, অতনু দাস, ললিতা বাবর, অভিনব বিন্দ্রারা গর্বিত করেছেন দেশকে।

    এই মুহূর্তে সম্ভাবনার অঙ্কে বাস্তবসম্মত বিচারে কোথায় দাঁড়িয়ে ভারতীয়রা? চলুন, দেখে নেওয়া যাক –

    ১) ব্যাডমিন্টন – পিভি সিঁধু আর কিদম্বি শ্রীকান্ত দুর্দান্ত, এখনও পর্যন্ত। পৌঁছেছেন কোয়ার্টার ফাইনালে। কিন্তু, সেমিফাইনালে যাওয়া প্রায়-অসম্ভব! যাঁদের বিরুদ্ধে খেলা, দুজনের থেকেই অনেক এগিয়ে সেই দুজন। ভারতীয়রা জিতলে বিরাট অঘটন।

    ২) অ্যাথলেটিক্স – পদক-সম্ভাবনা এমনিতেও ছিল না, এখনও নেই। বাকি আছে ৪x১০০ মিটার রিলে, ছেলে ও মেয়েদের, ৫০ কিলোমিটার হাঁটা, পুরুষদের ম্যারাথন। ৪x১০০ মিটার রিলে-তে প্রথম দশে শেষ করার সুযোগই নেই। বাকি দুটি ইভেন্টে দুই এবং তিন প্রতিযোগী আছেন। যদি প্রথম দশেও শেষ করতে পারেন, বিরাট কৃতিত্ব। পারবেন বলে মনে করার কোনও কারণ যদিও নেই!

    ৩) কুস্তি – পদক এলে আসতে পারে একমাত্র এই ইভেন্টে। আজ মঙ্গলবার সন্ধে ৭-০০ হরদীপ সিং নামছেন পুরুষদের ৯৮ কেজি গ্রেকো রোমান বিভাগে, তুরস্কের সেনক ইলদেম-এর বিরুদ্ধে। সেরা ১৬-র লড়াই। পদক পেতে আরও দুটি ম্যাচ জিততে হবে অন্তত।  শুক্রবার ১৯ অগাস্ট বিতর্কিত নরসিং যাদব লড়বেন ৭৪ কেজি ফ্রিস্টাইলে। অলিম্পিক শুরুর আগের বিতর্ক যদি তাঁর মানসিকতায় প্রভাব না-ফেলে, সুশীল কুমারের ছায়ার সঙ্গে যুদ্ধ যদি তাঁর সামনে বিরাট প্রতিবন্ধকতা হয়ে না-দাঁড়ায়, নরসিং ভাল কিছু করতেও পারেন। ওই একই দিন সন্দীপ তোমারও নামবেন, ৫৭ কেজি ফ্রিস্টাইলে। ২১ অগাস্ট পু্রুষদের ৬৫ কেজি ফ্রিস্টাইলে নামবেন লন্ডন অলিম্পিকে ব্রোঞ্জজয়ী যোগেশ্বর। মোট চারটি ইভেন্ট বাকি, পুরুষদের। হয়ত এমন হতেই পারে যে, শেষদিনেই এল পদক! মেয়েদের কুস্তিতে অবশ্য পদকের সম্ভাবনা না-দেখাই ভাল। বীনেশ ফোগট, ববিতা কুমারি ও সাক্ষী মালিকের কেউ যদি পদক আনতে পারেন, ভারতীয়রা উদ্বাহু হবেন।

    যা দাঁড়াচ্ছে, পুরুষদের কুস্তিতে হরদীপ-নরসিং-সন্দীপ-যোগেশ্বর ছাড়া, পদক পাওয়ার আশা এখন দুরাশাই!

    No comments