• Breaking News

    সেরা ১৬য় অতনু, রিও মাতাচ্ছেন বাঙালিরাই!

    [caption id="attachment_992" align="alignleft" width="300"]সেরা ১৬য় অতনু, রিও মাতাচ্ছেন বাঙালিরাই! সেরা ১৬য় অতনু, রিও মাতাচ্ছেন বাঙালিরাই![/caption]

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক


    রিও মাতাচ্ছেন তো বাঙালিরাই!
    দীপা কর্মকারের পর অতনু দাস। জিমন্যাস্ট দীপা চূড়ান্ত আটে জায়গা পেয়েই গিয়েছেন। তীরন্দাজ অতনু পৌঁছলেন সেরা ১৬-য়। দুজনের পারফরম্যান্সই আত্মবিশ্বাসে ঝকঝকে!
    একই সন্ধেয় দুটি ম্যাচ খেলে একটি সরাসরি অন্যটি পাঁচ সেটে জিতলেন কলকাতার অতনু। দুটি ম্যাচ মিলিয়ে ‘দশে দশ’ পেলেন ১২ বার, ২৪-এর মধ্যে! সবচেয়ে কম ৮, একবারই। তৃতীয় সেটে কিউবার বিরুদ্ধে। বাকি ১১ বার ৯। ২৪-এর মধ্যে ১২ বার ১০, ১১ বার ৯। আগামী ১২ অগাস্ট সেরা ১৬-র লড়াই দক্ষিণ কোরিয়ার লি সেয়ুং ইয়ুনের বিরুদ্ধে। এই পারফরম্যান্স নিশ্চয়ই স্বস্তি দেবে না কোরীয় প্রতিপক্ষকেও!
    ৩২ থেকে ১৬য় যেতে হারালেন কিউবার পুয়েন্তেস পেরেজ-কে। পাঁচ সেটের লড়াই। ২৮-২৫, ২৯-২৬, ২৬-২৭, ২৭-২৮ ও ২৯-২৮। দু’সেট এগিয়ে গিয়েও পরের দুটি সেট হেরে চাপে পড়ে গিয়েছিলেন অতনু। বুঝতেই দিলেন না। শেষ সেটে ৯, ১০, ১০! বিপক্ষও লড়াই করল শেষ পর্যন্তই। ৯, ৯, ১০। শেষ তীরে দশে দশ করার আগে কিউবার পেরেজ জানতেন, হেরে গিয়েছেন। কিন্তু তবুও দশ নিয়েই বিদায়। মনে রাখার মতো লড়াই।
    ৬৪ থেকে ৩২-এ যেতে অতনু অবশ্য সময় নিয়েছিলেন ৮ মিনিট। সম্ভাব্য ৯০-এর মধ্যে স্কোর ৮৮। ৯ তীরের মধ্যে দুটিতে ৯, বাকি ৭ তীরে ১০! তৃতীয় সেটে তো তিনবারই দশে দশ! নেপালের জিৎবাহাদুর মুকতান শুরু থেকেই পিছিয়ে পড়েছিলেন, কোনও সেটেই সেভাবে সমস্যায় ফেলতে পারেননি, বলে দিচ্ছে স্কোরই। অতনুর অনুকূলে স্কোর ২৯-২৬, ২৯-২৪ ও ৩০-২৬। এর মধ্যে শেষ দুটি সেটে আবার নেপালের তীরন্দাজ প্রথমে শুরু করেছিলেন। তাতেও অবশ্য একটুও টলাতে পারেননি অতনুকে।
    দিল্লি এখনও বহু দূর। সবে সেরা ১৬। কিন্তু, কলকাতার অতনু দাসের আত্মবিশ্বাস যদি ছোঁয়াচে হয়ে ছড়িয়ে পড়ে রিও-তে ভারতীয় শিবিরে, পদকের সম্ভাবনা উজ্জ্বল তখন!

    No comments