• Breaking News

    গোল করে, করিয়ে বার্সেলোনাকে সুপার কাপ দিলেন মেসি

    বার্সেলোনা ৩     সেভিয়া ০


    তুরান ১০, ৪৬, মেসি ৫৫


    (প্রথম লেগ, বার্সেলোনা ২-০ সেভিয়া)


    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক

    messi 1

    প্রত্যাশার বাইরে কিছু হয়নি। বার্সেলোনায় লিওনেল মেসির পাস ধরে গোল করার মতো ফুটবলার আছেন। তাই, মরসুমের শুরুতে স্পেনের সুপার কাপ আবারও ঘরে তুলল বার্সেলোনা। দুই পর্ব মিলিয়ে মোট ৫-০ ব্যবধানে সেভিয়াকে হারিয়ে।

    স্পেনের সুপার কাপ আসলে গত মরসুমের লা লিগা ও কোপা দেল রে চ্যাম্পিয়ন দুই ক্লাবের লড়াই, নতুন মরসুমের মুখে। বার্সেলোনা গতবার দুটি ট্রফিই জিতেছিল। ফলে, কোপা দেল রে রানার্স হিসাবে সেভিয়া সুযোগ পায় এবারের সুপার কাপ খেলার। আর, দুই পর্বে বার্সেলোনার জয় কোচ লুই এনরিকে-কে এনে দিল তাঁর অষ্টম ট্রফি, তৃতীয় মরসুমের গোড়ায়। সুপার কাপ অবশ্য এই প্রথম জিতলেন এনরিকে।

    নেইমার নেই। ব্যস্ত ব্রাজিলের হয়ে অলিম্পিক সোনার অভিযানে। আর্দা তুরানকে সেই জায়গায় খেলিয়েছিলেন এনরিকে। অধিনায়ক ইনিয়েস্তারও চোট। ফলে মেসির ওপর বাড়তি দায়িত্ব ছিল, মাঝমাঠ থেকে খেলা তৈরির। সেই কাজে মেসি সফল  আবারও। তুরানকে দিয়ে করালেন প্রথম গোল, নিজে করলেন দলের তৃতীয় গোল। ট্রফি এল!

    তবে, ১০ মিনিটে প্রথম গোল পেয়ে দু-পর্ব মিলিয়ে তিনগোলের ব্যবধানে এগিয়ে যাওয়ার পর বার্সেলোনার খেলায় সামান্য আত্মতুষ্টি দেখা গিয়েছিল। যে-সময় হোর্খে সাম্পাওলির প্রশিক্ষণে সেভিয়া চাপ সৃষ্টি করেছিল বার্সেলোনার অনভিজ্ঞ রক্ষণে। মাসচেরানোর সঙ্গে যেখানে স্টপারে খেলছিলেন স্যামুয়েল উমতিতি, দুপাশে আলেক্স ভিদাল ও লুকাস দিগনে। উমতিতি হাতে বল লাগিয়ে পেনাল্টি দিয়েছিলেন সেভিয়াকে। কিন্তু বার্সেলোনাকে বাঁচিয়ে দেন চিলের গোলরক্ষক, একসময় সাম্পাওলির অধিনায়ক ক্লদিও ব্রাভো। সেভিয়া-অধিনায়ক ইবোরার শট নিখুঁত অনুমান-ক্ষমতায় নিজের ডানদিকে ঝাঁপিয়ে। তারপরেও বারদুয়েক ব্রাভোর দক্ষতায় গোল পায়নি সেভিয়া। ম্যাঞ্চেস্টার সিটিতে চলে যেতে পারেন চিলের অধিনায়ক, জোর খবর আন্তর্জাতিক বাজারে, যদিও বার্সেলোনা এখনও নিশ্চিত কিছু জানায়নি। কেন তাঁকে ছানা অনুচিত, বোধহয় আরও একবার বুঝিয়ে দিলেন ব্রাভো।

    ইউরো-তে দেশ তুরস্কের হয়ে খেলার সময় প্রচুর বিদ্রুপ শুনতে হয়েছিল তুরানকে। সেই সময় তাঁর পাশে ছিলেন স্পেন ও বার্সেলোনা অধিনায়ক ইনিয়েস্তা। আশ্বস্ত করেছিলেন তাঁকে আর তুরস্ক সমর্থকদের দিয়েছিলেন বার্তা, তুরানের মতো ফুটবলারকে এভাবে বিদ্রুপ করা অর্থহীন। ইনিয়েস্তা বুধবার রাতে ছিলেন না কাম্প নু-তে। খেলানো হয়নি সুয়ারজকেও। তুরান ছিলেন, অধিনায়কের অনুপস্থিতিতে নিজেই তুলে নেন দায়িত্ব। দুটি গোলের প্রথমটি তো মেসির পাস থেকে, সহজেই সেভিয়া-গোলরক্ষক রিকোকে পরাস্ত করে। দ্বিতীয় গোলের শট দূর থেকে, মনে রাখার মতো গোল। মাঝমাঠে  ইনিয়েস্তার পাশে বুসকেতস-রাকিতিচ, ওপরে তো মেসি-সুয়ারেজ-নেইমার, প্রথম এগারয় জায়গা পাওয়া মুশকিল তুরানের। কিন্তু সুপার কাপের এই পারফরম্যান্স বলে দিল, প্রয়োজন পড়লেই মাঠে আসতে তৈরি থাকবেন তুরান।

    মেসির গোল হেডে, সচরাচর যা করেন না। দিগনের ক্রস ভেসে এসেছিল, ঠিক সময় লাফিয়ে মরসুমে গোল-করা শুরু করলেন মেসি!

    শেষ ১১ মিনিট ১০ জনে খেলতে হয় বার্সেলোনাকে। আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন মাসচেরানো। তখন তিনটি পরিবর্তন হয়ে গিয়েছিল। কিছু করারও ছিল না এনরিকের। পরে জানা যায়, হ্যামস্ট্রিং-য়ে চোট। অন্তত এক সপ্তাহ বাইরে। যার অর্থ, লা লিগার প্রথম ম্যাচে বেতিসের বিরুদ্ধে খেলতে পারবেন না মাসচেরানো। মরসুমে প্রথম ট্রফি পাওয়ার দিনে যা একমাত্র খারাপ খবর বার্সেলোনার কাছে।

    No comments