• Breaking News

    চমক! প্যারালিম্পিকে সোনা মারিয়াপ্পানের, ব্রোঞ্জ বরুণের

    [caption id="attachment_1644" align="alignleft" width="300"]সোনালি মুহূর্ত। মারিয়াপ্পান ও বরুণ সোনালি মুহূর্ত। মারিয়াপ্পান ও বরুণ[/caption]

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক

    অলিম্পিকের অধরা স্বপ্নপূরণ প্যারালিম্পিকে!

    ১১৮ জনের ভারতীয় টিম সোনালি ঝলক দেখাতে পারেনি দেশকে। চরম ব্যর্থতার মাঝে সফল দুই নারী --- পিভি সিন্ধু আর সাক্ষী মালিক। যে দু’জন দেশকে দিয়েছিলেন যথাক্রমে রুপো আর ব্রোঞ্জ।

    অলিম্পিকের ব্যর্থতা ঢেকে দিলেন প্যারালিম্পিক অ্যাথলিটরা। দ্বিতীয় দিনই একই ইভেন্ট থেকে দেশকে সোনা আর ব্রোঞ্জ এনে দিয়ে। যা আগে কখনও হয়নি।

    রিওতে হাইজাম্পে (টি-৪২ বিভাগে) সোনা জিতলেন মারিয়াপ্পান থাঙ্গাভেলু। ১.৮৯ মিটার উচ্চতা পেরিয়ে। এই ইভেন্টে মারিয়াপ্পান ছিলেন ফেভারিট। তিনিও কথা রাখলেন। হাইজাম্পেই ব্রোঞ্জ জিতলেন বরুণ সিং ভাটি। ১.৮৬ মিটার লাফিয়ে পেরিয়ে । রুপো আমেরিকার স্যাম গ্রিউয়ির।

    ভারতের প্যারিলিম্পিক ইতিহাসে মারিয়াপ্পান থাঙ্গাভেলু তৃতীয় অ্যাথলিট, যিনি সোনা জিতলেন। এর আগে ১৯৭২ সালে হেডেলবার্গ গেমসে ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইল সাঁতারে সোনা জিতেছিলেন মুরলীকান্ত পেটকার। তার ৩২ বছর পর ফের সোনা দিয়েছিলেন দেশকে দেবেন্দ্র ঝাঝারিয়া, ২০০৪ সালে আথেন্সে, জ্যাভেলিন থ্রো-তে। বারো বছর পর ফের কোনও ভারতীয় সোনার হাসি হাসলেন।

    তামিলনাড়ুর সালেম জেলার ছোট্ট গ্রাম থেকে উঠে আসা মারিয়াপ্পানের। পাঁচ বছর বয়সে বাস দুর্ঘটনায় ডান পা প্রবল ভাবে জখম হয়। ডান হাঁটুর নীচ থেকে বাকি পা-টা আর কাজই করত না সেভাবে। কিন্তু মারিয়াপ্পান হাল ছাড়েননি। ওই সময় থেকেই বেছে নেন হাইজাম্প। রিও প্যারালিম্পিকে তিনি কোয়ালিফাই করেছিলেন ‘এ’ মার্ক নিয়ে। ২১ বছরের মারিয়াপ্পান ভারতের প্রথম প্যারালিম্পিক অ্যাথলিট, যিনি হাইজাম্পে সোনা জিতলেন।

    অলিম্পিক নিয়ে সারা দেশ জুড়ে যতটা উন্মাদনা ছিল, ততটাই অনাগ্রহ প্যারিলিম্পিক নিয়ে। কয়েক দিন আগে এক ভারতীয় অ্যাথলিটই টুইট করেছিলেন, বড় অসহায় লাগছে রিওতে। প্যারালিম্পিকের জন্য আমাদের দেশের কোনও মিডিয়া রিওতে নেই। মারিয়াপ্পান আর বরুণের চমকে দেওয়া সাফল্য সারা দেশকে নতুন করে ভাবতে বাধ্য করেছে।

    সারা দেশ এখন কুর্নিশ করছে ইতিহাস তৈরি করা দুই প্রতিবন্ধী অ্যাথলিটকে!

    No comments