• Breaking News

    চোটে বিপর্যস্ত রেয়ালের বিদায়, ত্রিমুকুটের স্বপ্ন চুরমার রোনালদোদের

    ফ্রি কিক থেকে রোনালদোর দুর্দান্ত গোলেও কোপা দেল রে সেমিফাইনালের ছাড়পত্র জুটল না


    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক

    ronaldo-real-madrid_3877989

    গ্যারেথ বেল, পেপে, হামেস রদরিগেজ, রাফায়েল ভারানে, মার্সেলো, লুকা মোদরিচ। সম্মিলিত দক্ষিণা প্রায় ৩০০ মিলিয়ন ইউরো। ভারতীয় টাকায় ২১৯০ কোটি, প্রায়!

    জিনেদিন জিদানকে দল নামাতে হয়েছিল এই ‘৩০০ মিলিয়ন ইউরো’ বাইরে রেখে! ফল? কোপে দেল রে-র কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হল রেয়াল মাদ্রিদকে। প্রথম পর্বে নিজেদের মাঠে ১-২ হেরেছিল রেয়াল। সেলতা ভিগোর মাঠে এসে ২-২। শেষ মুহূর্তে আর একটি গোল করতে পারলে সেমিফাইনালের রাস্তা খুলে যেত। কিন্তু, ‘সের্খিও রামোস’ হয়ে উঠতে পারেননি ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোরা!

    গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলারদের চোট ভোগাচ্ছে রেয়ালকে, ২০১৭-র শুরু থেকেই। গোটা ২০১৬ দুর্দান্ত কাটলেও নতুন বছরের শুরুতে নতুন রেকর্ড গড়ে টানা ৪০ ম্যাচ অপরাজিত থাকার পর হারতে হয়েছিল পরপর দুটি ম্যাচে। তার দ্বিতীয়টি ছিল কোপা দেল রে-তে সেলতা-র কাছে হার। ফিরতি ম্যাচ জিততে পারলে এবং গোল-পার্থক্যে সেলতা-কে পেছনে ফেলতে পারলে সেমিফাইনালে যেতে পারত। কিন্তু, ড্র করে ছিটকে যেতে হল প্রতিযোগিতা থেকেই।

    সেলতা-ই এগিয়ে গিয়েছিল প্রথমে। তবে, নিজেদের ফুটবলারদের কারও পা থেকে নয়, রেয়ালের দানিলোর গোলে! জন গুইদেত্তির শট আটকে দিয়েছিলেন রেয়ালের গোলরক্ষক কিকো কাসিয়া। কিন্তু ফিরতি বল আগুয়ান দানিলোকে অপ্রস্তুতে ফেলে তাঁর পায়ে লেগে চলে যায় উল্টো পথে, জালে!

    গোল শোধ করেছিলেন ক্রিস্তিয়ানো। দুর্দান্ত ফ্রি কিক। গোলরক্ষক ঝাঁপিয়েও বলের কাছাকাছি পৌঁছতে পারেননি। বল আশ্রয় নিয়েছিল সাইড নেটে। রেয়াল-রক্ষণ অবশ্য আবার গোল হজম করে, দানিয়েল ওয়াসের শটে। তখন সেমিফাইনালে যাওয়ার জন্য রেয়ালের দরকার ছিল আরও ২ গোল। লুকাস ভাজকুয়েজের হেডে সমতা ফিরলেও, সেমিফাইনালের ছাড়পত্র পাওয়ার গোল আর আসেনি। গতবার কোচ রাফা বেনিতেজ ভুল ফুটবলার খেলিয়ে রেয়ালকে নির্বাসিত করেছিলেন প্রতিযোগিতা থেকেই। এবার, গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলারদের চোটে প্রথম আট থেকেই বিদায়।

    সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দুটি ট্রফিতে অবশ্য বেশ ভাল জায়গাতেই আছে রেয়াল। লা লিগায় শীর্ষে আছে, এক ম্যাচ কম খেলেও। আর, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেতাব ধরে রাখার অভিযান শুরু হবে ফেব্রুয়ারিতে, নকআউট পর্বে। মরসুমে ত্রিমুকুটের স্বপ্ন চুরমার, ঠিক। দ্বিমুকুটের স্বপ্ন দেখতেই পারেন জিদান।

    No comments