• Breaking News

    আই লিগের ভুলে যাওয়া সে সব গল্প

    i-leagueআজ থেকে শুরু হচ্ছে আই লিগ। প্রথম ম্যাচে নামছে ইস্টবেঙ্গল-আইজল। কাল মোহনবাগান-চার্চিল। জাতীয় লিগ ও আই লিগ মিলিয়ে অনেক পুরোনো গল্প তুলে ধরল রাইট স্পোর্টস

    প্রথম জাতীয় লিগ

    ১২টা টিম দুই গ্রুপে ভাগ করে ১৯৯৬ সালে শুরু হয়েছিল প্রথম জাতীয় লিগ। আটটা টিম পরের পর্বে পৌঁছায়। জেসিটি চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। মোহনবাগান মূলপর্বে পৌঁছতে পারেনি। পরের বার অবশ‌্য চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল চাত্তুনির কোচিংয়ে।

    ম্যাচ ও গোল

    এখনও পর্যন্ত আই লিগে ১২৮৮টা ম্যাচ হয়েছে। গোল হয়েছে সব মিলিয়ে ৩৪৩৯

    সর্বোচ্চ স্কোরার

    জাতীয় লিগ ও আই লিগের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি গোল র‍্যান্টি মার্টিন্সের, ২১৪। তিনিই একমাত্র ফুটবলার যাঁর ২০০-র বেশি গোল রয়েছে। তালিকার দু’নম্বরে ওডাফা ওকোলি (১৭৯), তিনে ইউসুফ ইয়াকুবু (১৪৬)। র‍্যান্টি ছ’বার সোনার বুট জিতেছেন। চার বার ওডাফা, দু’বার ইয়াকুবু।

    সুনীল ছেত্রী

    জাতীয় লিগ ও আই লিগ মিলিয়ে সবচেয়ে বেশি গোল করা ভারতীয় স্ট্রাইকার বাইচুং ভুটিয়া, ৮৯টি। তাঁকে এ বার ছাপিয়ে যেতে পারেন সুনীল। তাঁর গোল সংখ্যা ৮২।

    ৩ ভারতীয়

    এখনও পর্যন্ত তিন জন ভারতীয় সোনার বুট পেয়েছেন জাতীয় লিগ বা আই লিগে। বাইচুং ভুটিয়া ১৯৯৬-৯৭ সালে জেসিটির হয়ে। পরের বছর এফসি কোচির রমন বিজয়ন সর্বোচ্চ স্কোরার ছিলেন। ২০১৩-১৪ মরসুমে সুনীল ছেত্রী।

    ১৪-০

    জাতীয় লিগ বা আই লিগে সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়। ২০১১ সালে ৩০ মে এয়ার ইন্ডিয়াকে ১৪-০ হারিয়ে ছিল ডেম্পো। ৭ গোল করেছিলেন র‍্যান্টি।

    ২০৯

    জাতীয় লিগ বা আই লিগে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ জিতেছে ইস্টবেঙ্গল, ২০৯টা। লাল-হলুদেরই করা ৬২৫ গোল যে কোনও টিমের সবচেয়ে বেশি।

    ৩২

    এক মরসুমে র‍্যান্টি মার্টিন্সের করা ৩২-ই জাতীয় লিগ বা আই লিগে কোনও প্লেয়ারের সর্বোচ্চ গোল। যা ২০১১-১২ সালে করেছিলেন র‍্যান্টি। তার আগের বছর ডেম্পোর ছিল ৬৩ গোল। যা কোনও টিমের এক মরসুমে সর্বোচ্চ গোল।

    ৫ বারের চ্যাম্পিয়ন

    জাতীয় লিগ বা আই লিগে সবচেয়ে বেশি খেতাব ডেম্পোর, ৫ বার। মোহনবাগান তার পরেই, চার বার। তার পরে ইস্টবেঙ্গল, তিন বার। এ ছাড়াও চ্যাম্পিয়ন হয়েছে জেসিটি, সালগাওকার, মাহিন্দ্রা, চার্চিল। বেঙ্গালুরু এফসি এই খেতাব জিতেছে ২ বার।

    বিরল

    জাতীয় লিগ বা আই লিগের কুড়ি বছরের ইতিহাসে বিরল ঘটনা। চার্চিল ব্রাদার্স একমাত্র টিম যারা এ বার গোয়া থেকে খেলবে। যা আর কখনও হয়নি। প্রতিবারই ন্যূনতম দুটি দল অন্তত খেলেছিল গোয়ার।

    No comments