• Breaking News

    বলবন্তের জোড়া গোল, ষষ্ঠ জয় মোহনবাগানের










    মোহনবাগান – ৩ ডিএসকে শিবাজিয়ান্স – ১

    (বলবন্ত ৪২, ৪৪, কাতসুমি পে ৮৯) (মিলন ৩৩)


    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক -  পিছিয়ে পড়েও জয়ের রাস্তায় ফিরে এল মোহনবাগান। রবীন্দ্র সরোবর স্টেডিয়ামে ঘরের মাঠে ডিএসকে শিবাজিয়ান্সকে হারিয়ে অপরাজিত থেকেই শেষ করল আই লিগের প্রথমার্ধ। সোনি নর্দে সুস্থ থাকায় আবারও শুরু করেছিলেন। বলবন্ত সিংকে ফিরিয়ে এনেছিলেন কোচ সঞ্জয় সেন। সেই বলবন্তই জোড়া গোল করে ফিরিয়ে আনেন মোহনবাগানকে, ম্যাচে। ৩৩ মিনিটে প্রথমে গোল করে ডিএসকে-কে এগিয়ে দিয়েছিলেন মিলন সিং। তখনও পর্যন্ত ম্যাচে পারফরম্যান্সের প্রতিফলন ছিল ওই গোলে। ডিএসকে খুয়ান কেরো বাঁদিক থেকে ঢুকে এসেছিলেন ভেতরে, এদুয়ার্দোকে গতিতে পেছনে ফেলে। মণিপুরি মিলন সিংও দুরন্ত গতিতে উঠে এসেছিলেন। চলতি বলেই ডান পায়ের শটে দেবজিৎকে পরাস্ত করে যান মিলন, রবীন্দ্র সরোবর স্টেডিয়ামকে চুপ করিয়ে দিয়ে। কিন্তু, বেশিক্ষণ পিছিয়ে থাকেনি মোহনবাগান। ফিরে আসে প্রীতম কোটালের ক্রসে, যা ধরতে গিয়ে ডিএসকে-র গোলরক্ষক সুব্রত পাল ভুল করে ফেলেন আর বলবন্ত বুঝিয়ে দেন, কোচ তাঁর ওপর ভরসা রেখে একেবারেই ভুল করেননি। দু-মিনিটের মধ্যেই প্রীতম-বলবন্ত জুটির আরও এক ফসল। এবার বলবন্তের সিজার্স কিকে ২-১। বিরতিতে এগিয়েই মাঠ ছেড়েছিল মোহনবাগান। দ্বিতীয়ার্ধে দাপট মোহনবাগানেরই। তবে, তা গোলে পরিবর্তিত করতে পারছিলেন না মোহনবাগানের ফরোয়ার্ডরা। খেলা শেষের আগে গৌরমাঙ্গি সিংয়ের ভুলে পেনাল্টি পেয়েছিল মোহনবাগান। অধিনায়ক কাতসুমি এগিয়ে যান এবং সুব্রতকে উল্টোদিকে ফেলে নিশ্চিত করে দেন, পরপর দুটি অ্যাওয়ে ম্যাচে ড্রয়ের পর এবার তিন পয়েন্ট নিয়েই ফিরছে দল। ৯ ম্যাচে মোহনবাগানের সংগ্রহ এখন ২১ পয়েন্ট। শীর্ষে-থাকা ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে একই বিন্দুতে। গোল-পার্থক্যে অবশ্য এগিয়ে থাকল ইস্টবেঙ্গল। ১৮ গোল করেছে ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগানের গোল ১৫। দুই দলই চারটি করে গোল খেয়েছে। আর ডিএসকে ১০ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে থেকে গেল ষষ্ঠ স্থানেই। মোহনবাগানের সমর্থক সৌম্য মুখার্জির অকালপ্রয়াণে ম্যাচের শুরুতে এক মিনিটের নীরবতা পালন করা হয়েছিল। একুশ বছরের সৌম্য শিলিগুড়িতে বড় ম্যাচ দেখে ফেরার পথে বরানগর রোড স্টেশনে ট্রেন থেকে নামার সময় দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছিলেন গত ১৩ ফেব্রুয়ারি। তাঁর স্মৃতিতে গানও বেঁধেছিল মোহনবাগান সমর্থকরা যা গ্যালারিতে শোনা গিয়েছিল বারবার। বলবন্ত-কাতসুমিরা সেই স্মৃতি স্মরণীয় করে রাখলেন সৌম্যর স্বপ্নের মোহনবাগানকে এবারের আই লিগে ষষ্ঠ জয় এনে দিয়ে। 















    No comments