• Breaking News

    জিতেও আইজল দ্বিতীয় স্থানেই! - শান্তনু ব্যানার্জি

    চার্চিল ব্রাদার্সের বিরুদ্ধে ৩-১ ব্যবধানে জিতে আই লিগ টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছিল আইজল এফসি। কিন্তু মোহনবাগানও জিতে যাওয়ায় আবার নেমে যেতে হল দ্বিতীয় স্থানেই।
    তিলক ময়দানে এদিন শুরু থেকেই হাড্ডাহাডি লড়াই। চার্চিল ফুটবলারের হেড গোলপোস্টে লেগে ফিরে এসেছিল। কিছুক্ষণ পরেই আইজলের হয়ে গোলের খাতা খুলে ফেলেন আইভোরি কোস্টের ফুটবলার কামো বাই। চার্চিল ব্রাদার্সের ডিফেন্সের ভুলে। গোল হজম করেও ডেরেক পেরেরার দল গুটিয়ে যায়নি। আইজল ডিফেন্সে আক্রমণ নিযে যাচ্ছিল। আক্রমণ আর প্রতি আক্রমণে আই লিগের গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচ জমে উঠছিল।
    বিরতির ঠিক আগে ম্যাচে ফিরে আসার সুযোগ পেয়েছিল চার্চিল। কিন্তু ঠিক সময়ে আইজল গোলকিপার অ্যালবিনো গোমস বেরিয়ে এসে বল ক্লিয়ার করে দিয়েছিলেন।
    বিরতির পরে কয়েক মিনিটের মধ্যেই খালিদ জামিলের ফুটবলাররা ব্যবধান বাড়িয়ে ফেলেন। সেই বাই কামোর গোলেই। ম্যাচে জোড়া গোল। আর সেই সঙ্গেই শিলং লাজং এর ফুটবলার দিপান্দা দিকার সঙ্গে গোল্ডেন বুটের দৌড়েও ঢুকে পড়লেন বাই কামো।
    সেটপিস থেকে একটি গোল শোধ করতে পারত চার্চিল। বক্সের ভিতর চার্চিলের আদিল খান পা ছুঁইয়ে শুধু বলের গতিমুখ পাল্টে দেন। কিন্তু আইজলের গোলকিপার অ্যালবিনো গোমস সজাগ থাকায় বল ক্লিয়ার করে দেন।
    আক্রমণ প্রতি আক্রমণের মাঝেই চার্চিল ব্রাদার্স আইজলের জালে বল জড়িয়ে দেয় অবশেষে। অ্যান্টনি উল্ফের পাস থেকে অ্যান্টনি ডি সুজা চার্চিলের হয়ে গোল করেন। কিন্তু, ম্যাচ শেষ হওয়ার কিছু আগে রালতের গোলে জয় নিশ্চিত করে আইজল। ১৬ ম্যাচে ৩৩ পয়েন্ট এখন তাদের।

    No comments