• Breaking News

    মেসির অবসর তো বাড়তি অনুপ্রেরণা রোনালদোর!

    [caption id="attachment_442" align="alignleft" width="300"]মেসির অবসর তো বাড়তি অনুপ্রেরণা রোনালদোর! মেসির অবসর তো বাড়তি অনুপ্রেরণা রোনালদোর![/caption]

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক


    লিওনেল মেসি অবসর নিয়ে ফেলেছেন হতাশায়। আর সেটাই তো বাড়তি অনুপ্রেরণা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর!
    সমকালীন ফুটবলে দুই সেরার লড়াইয়ের পরিধি বিস্তৃত। ক্লাবের হয়ে দুজনেই দুর্দান্ত সফল। দেশের হয়ে কারও কোনও ট্রফি নেই, সিনিয়র স্তরে। মেসি তবুও বিশ্বকাপ এবং কোপা মিলিয়ে চারবার ফাইনাল খেলে ফেলেছিলেন। রোনালদো আপাতত একবারই খেলেছেন, ইউরোর ফাইনাল। নিজের দেশে, ২০০৪ সালে গ্রিসের কাছে হারের যন্ত্রণা এখনও তাঁর মনে। তখন তিনি তরুণ প্রতিভা। পর্তুগাল তখনও ‘তাঁর’ হয়ে ওঠেনি। লু্ইস ফিগোর বিরাট ছায়ায় ঢাকা সবাই। তুলনায় বেশি সফল গতবার। নিজে দুর্দান্ত খেলে পর্তুগালকে সেমিফাইনালে নিয়ে গিয়েছিলেন ২০১২য়। হার শেষ পর্যন্ত স্পেনের কাছে। ফাইনালে পৌঁছন হয়নি আর।
    এবার গ্রুপ লিগে শুরুটা ভাল না হলেও, কোয়ার্টার ফাইনালে খেলছেন আজ। জিতলেই সেমিফাইনাল, সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ হয়ত বেলজিয়াম। ফাইনালে ওঠার রাস্তা তুলনামূলক সহজ। ইতালি আর জার্মানির মধ্যে কোনও এক দেশ বা ফ্রান্সের বিরুদ্ধে খেলতে হতে পারে ফাইনালে। এমন সুযোগ কি আর কখনও পাবেন রোনালদো? বাড়তি তেতে থাকবেন না তারপরও, এই সহজ পথে ফাইনালে পৌঁছনোর রাস্তা দেখতে পেয়েও?
    ফিরে আসবেন কিনা, মেসির মর্জি। না-এলে এই মুহূর্তের হিসাবে সিনিয়র স্তরে মেসির গোল ৫৫, রোনালদোর ৬০। দুজনেই নিজের নিজের দেশের সর্বকালের সর্বোচ্চ। ইউরোতে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলে ফেলেছেন রোনালদো। আর একটি গোল মানেই ইউরোর সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা হিসাবে প্লাতিনিকে ছুঁয়ে ফেলবেন। হ্যাঁ, প্লাতিনি একই ইউরোতে (১৯৮৪) ফ্রান্সকে চ্যাম্পিয়ন করার পথে করেছিলেন ওই ৯ গোল। রোনালদো তাঁর গোলসংখ্যা ছুঁয়ে ফেললেও চারটি ইউরো লেগেছে, বলতে পারেন অনেকে। আমল দেবে কে? সর্বোচ্চ মানে সর্বোচ্চ, ব্যাস্!
    এখনও যাঁরা দেশের হয়ে ট্রফিকেই সর্বোচ্চ সাফল্য মনে করেন, তাঁদের খাতায় সেরা হিসাবে উঠে আসার জমি প্রস্তুত এখন রোনালদোর। একেবারে চাপমুক্ত মনে খেলতে পারবেন। ভাবুন না, মেসি যদি সেদিন শতবার্ষিকী কোপা জিতে যেতেন, অবসর তো নিতেনই না এবং কোয়ার্টার ফাইনালটা আজই খেলতে হত রোনালদোকে। ঠিক কতটা চাপে থাকতেন রোনালদো, আলাদা করে বলে দিতে হবে?
    পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে মেসিহীন আন্তর্জাতিক ফুটবলের রাজা হয়ে ওঠার এই সুবর্ণ সুযোগ কি হেলায় হাতছাড়া করতে পারেন রোনালদো!

    No comments