• Breaking News

    ২৯তম জন্মদিনেও মেসির চোখ কোপায়

    [caption id="attachment_248" align="alignleft" width="295"]বার্থডে বয় মেসি বার্থডে বয় মেসি[/caption]

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক
    ব্যালন ডি’ওর পাঁচ বার। ব্রাজিল বিশ্বকাপে সোনার বল। বেজিং অলিম্পিকে সোনা। বার্সেলোনায় কল্পনাতীত সাফল্য। অ্যাকাউন্টে অফুরান গোল। পেলে-মারাদোনার কৌলিন্যে পৌঁছে যাওয়া।
    আর কী চাই লিওনেল মেসির?
    যদি প্রশ্ন রাখা হয় এলএম টেনের কাছে, নিরস গলায় উত্তর আসবে, ‘এখনও একটা বিশ্বকাপ রাখতে পারিনি শোকেসে। কোপাও অধরাই থেকে গিয়েছে।’
    প্রাপ্তির তুমুল ঢেউয়ে ভেসেও অপ্রাপ্তি নিয়ে যেন বেঁচে রয়েছেন লিও মেসি। আর দুটো দিন পর যার একটা হয়তো মিটিয়ে ফেলবেন আর্জেন্টিনার ‘টেন’। কোপা সেন্টেনারির কাপ জিতে।
    রবিবার অনেক দূরের গল্প। মেসি এক অন্য তৃপ্তির দিনে পা দিলেন শুক্রবার। ২৯তম জন্মদিন। সারা বিশ্ব ফেসবুক-টুইটারে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে বার্থডে বয়কে। তিনি তখন নিজেকে নিয়ে নয়, নিজের স্বপ্নকে ছোঁয়ার জন্য ব্যাকুল। কোপাতেই চোখ মেসির।
    ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছেও কাপ জেতা হয়নি। জার্মানির কাছে হেরে গিয়েছিল লিওর টিম। পরের বছর কোপাতেও তাই। সে বার ফাইনালে চিলের কাছে হেরে যেতে হয়েছে আর্জেন্টিনাকে। তিন বছরে তৃতীয় ফাইনাল। সাফল্যের হার দারুণ। কিন্তু এ বার ট্রফি জিততে পারবেন মেসিরা?
    ২৩ বছর কোনও ট্রফি নেই আর্জেন্টিনার। এত দিনের খরা এ বার কাটাতে চান মেসি। ফাইনালে ওঠার পর বলেওছেন, ‘বহু বছর আমরা কোনও ট্রফি পাইনি। গত দু’বছরে বারবার খুব কাছ থেকে ফিরে আসতে হয়েছে। এ বার আর সেটা হতে দেব না। আমরা কনফিডেন্ট।’
    এরই মধ্যে আবার এক বিপত্তি ঘটল। চিলের সঙ্গে ফাইনাল ম্যাচটা হবে নিউ জার্সিতে। হস্টন থেকে সেখান যাওয়ার পথে বিমানে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকতে হয় মেসিদের। যা নিয়ে বিরক্ত হয়ে ইন্সটাগ্রামে ফ্লাইটের ছবি পোস্ট করে মেসি সমালোচনা করেছেন আর্জেন্টিনা ফুটবল সংস্থার কর্তাদের। লিখেছেন, ‘সেই একই গল্প। গন্তব্যে পৌঁছনোর জন্য আবার দীর্ঘ অপেক্ষা করতে হল। এই বিপর্যয় যে কবে থামাতে পারবে এএফএ!’
    মেসির এই অভিযোগ নিয়ে সোরগোল পড়ে গিয়েছে। প্রায় সঙ্গে সঙ্গে আর্জেন্টিনা ফুটবল সংস্থার তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘হস্টন থেকে যে ফ্লাইট নিউ জার্সি যাচ্ছিল, আবহাওয়ার কারণে পৌঁছতে দেরি হয়েছে। তা ছাড়া কোপার আয়োজক কিন্তু আমরা নই। এ বার যারা আয়োজন করছে, তারাই ঠিক করেছে কোন সময় টিমগুলো এক শহর থেকে আর এক শহরে যাবে।’
    মেসির অভিযোগ নিয়ে নয়, মেসিকেই মেতে সারা দুনিয়া। ২৯ বছরে পা দেওয়া লিও হয়তো দেশের হয়ে কেরিয়ারের প্রথম ট্রফিটা পাবেন আর দু’দিনের মধ্যেই।
    ওই কোপাই হবে লিও মেসির জন্মদিনের সেরা উপহার!

    No comments