• Breaking News

    বোপান্নার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে লিয়েন্ডার, ‘মিডিয়ার ফোলানো বেলুন!’

    ডেভিস কাপে শুক্রবার কোরিয়ার বিরুদ্ধে খেলতে নামছে ভারত।


    এশিয়া-ওসিয়ানিয়া গ্রুপ ওয়ান ডেভিস কাপ টাই, চন্ডিগড়ে


    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক

    leanderfb-story_647_061116065828

     

    বয়স ৪৩, খেলবেন ডেভিস কাপে ৫৩তম টাই!

    খেলতে শুরু করেছিলেন ১৯৯০ সালে। ২৬ বছর পরও তিনি ভারতের অন্যতম ভরসা। লিয়েন্ডার পেজ মানে এখন অতিমানবিক কিছু সংখ্যা! ডেভিস কাপ সিঙ্গলসে তাঁর রেকর্ড ৪৮-২২। ডবলসে, ঈর্ষণীয় ৪১-১১। সব মিলিয়ে ১২২ ম্যাচ খেলেছেন ডেভিস কাপে, জিতেছেন ৮৯। চন্ডিগড়ে কি কোরিয়ার বিরুদ্ধে পাবেন ৯০তম জয়?

    সমস্যা, ডবলসে তাঁর সঙ্গী রোহন বোপান্না, যাঁর সঙ্গে বিরাট সখ্য লিয়েন্ডারের, এমন নয়। ভারতীয় টেনিস সার্কিটে বোপান্না পরিচিত মহেশ ভূপতির কাছের লোক হিসাবেই। গতবার ২০১২ অলিম্পিকের সময় থেকে এই পারস্পরিক ইগোর লড়াইতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল ভারতীয় টেনিস, লন্ডনে। ভূপতি খেলেছিলেন বোপান্নাকে সঙ্গে নিয়ে আর লিয়েন্ডারকে খেলতে হয়েছিল বিষ্ণু বর্ধনের সঙ্গে। পদক পায়নি ভারত। লিয়েন্ডার চেয়েছিলেন, ভারতের জন্যই সেরা সম্ভাবনা ভূপতিকে নিয়ে খেলতে। ভূপতি মানেননি। ভারত থেকে গিয়েছিল চারজন। কোনও জুটিই পদক পায়নি, বলা বাহুল্য।

    এবারও অলিম্পিক নিয়ে একই রকম সমস্যা ছিল। বোপান্না যেহেতু প্রথম দশে আছেন, এটিপি ডবলস র‍্যাঙ্কিংয়ে, সঙ্গী বেছে নেওয়ার সুবিধা ছিল তাঁর। লিয়েন্ডারকে সপ্তম অলিম্পিকে সঙ্গী বেছে নেননি বোপান্না। সর্বভারতীয় টেনিস সংস্থাকে বলেছিলেন, সাকেথকে নিয়ে খেলতে চান। এআইটিএ মানেনি। তাই, বোপান্নাকে খেলতে হবে অলিম্পিকে লিয়েন্ডারকে নিয়েই।

    এই পরিস্থিতিতে লিয়েন্ডার-বোপান্না জুটি কি নিজেদের উজাড় করে দেবেন ডেভিস কাপে? লিয়েন্ডারকে নিয়ে প্রশ্ন নেই তাঁর ২৬ বছরের উত্ত্বলতম ডেভিস কাপ রেকর্ডের কারণে। উইম্বলডনে কোনও ভারতীয় তারকাই খেলতে পারেননি ঠিকঠাক। তার পরই এই ডেভিস কাপ টাই।

    লিয়েন্ডার নিজে কিন্তু একেবারেই উড়িয়ে দিয়েছেন এই জল্পনাকে। ‘বোপান্নাকে শ্রদ্ধা করি, বোপান্নাও করে আমাকে। বাকি পুরোটাই মিডিয়ার ফোলানো বেলুন! দেশের জন্য যখন খেলতে হবে, সেরাটাই দেব দুজনে, সব ভুলে গিয়েই। সার্বিয়ার বিরুদ্ধে দু-সেট পিছিয়েও কি ম্যাচটা আমরা জিতিনি বেঙ্গালুরুতে?’ একই সঙ্গে এটাও সত্যি যে, গত সেপ্টেম্বরে চেক প্রজাতন্ত্রের বিরুদ্ধে এই জুটি বিশেষ কোনও প্রতিরোধ ছাড়াই আত্মসমর্পণ করেছিল!

    লিয়েন্ডার অবশ্য মাথা ঘামাতে রাজি নন। রিও অলিম্পিকের আগে বোপান্নার সঙ্গে প্রয়োজনীয় অনুশীলনও সেরে রাখবেন, বলছেন। আর বলেছেন বন্ধু জিশান আলিকে নিয়ে। ‘১৯৯০-তে যখন ডেভিস কাপে খেলতে শুরু করেছিলাম, জিশান ছিল সেই দলে। তার আগে ১৯৮৮ সোল অলিম্পিকেও খেলেছিল। সেইবারই টেনিস ফিরে এসেছিল অলিম্পিকে। রিও-তে সেই জিশানও আমাদের ভারতীয় দলের কোচও!’

    Davis-Cup-Venue-for-India-Korea-Tie-chosen!-img36674_668

    শুক্রবার এশিয়া-ওসিয়ানিয়া গ্রুপ ওয়ান ডেভিস কাপ টাইয়ে চন্ডিগড়ে খেলা শুরু কোরিয়ার বিরুদ্ধে। ভারত বেছে নিয়েছে ঘাসের কোর্ট, যা সুবিধাজনক বলে মনে করেছেন ভারতীয় দলের পরিচালকরা। কিন্তু প্রচণ্ড বৃষ্টিতে খেলা ঠিক সময়ে শুরু করা নিয়ে সংশয়। আর, সিঙ্গলসে সাকেথ মাইনেনি ও রামকুমার রমানাথন দুজনেই তরুণ, অনভিজ্ঞ। সবই নির্ভর করছে এই দুই তরুণ ভারতীয় টেনিস তারকার ওপর। চারটি সিঙ্গলসে দুটিতে তাঁরা না জিতলে, লিয়েন্ডার-বোপান্না ডবলস জিতলেও তো টাই জিতবে না ভারত!

    No comments