• Breaking News

    টানা ৫৩ ম্যাচ! বাছাইপর্বে ১০ বছর অপরাজিত ইতালি

    ম্যাসিডোনিয়া ২   ইতালি ৩


    (নেস্ত্রোভস্কি ৫৭, হাসানি ৫৯) (বেলোত্তি ২৪, ইমমোবিলে ৭৫, ৯২)


    আলবানিয়া ০    স্পেন ২


    (দিয়েগো কোস্তা ৫৫, নোলিতো ৬৩)


     

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক

    imobile

    ৬ সেপ্টেম্বর, ২০০৬। শেষবার হেরেছিল ইতালি। বাছাইপর্বের ম্যাচে।

    সেই হার ছিল ফ্রান্সের কাছে। সিডনি গোভুর জোড়া গোল আর থিয়েরি অঁরির একগোল। ১-৩ হেরেছিল সদ্য বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইতালি। সেই দলের কাছে, যাদের বিশ্বকাপ ফাইনালে টাইব্রেকারে হারিয়েছিল মার্সেলো লিপ্পির দল। বিশ্বকাপ জিতে লিপ্পি সরে গিয়েছিলেন। তাঁর জায়গায় এসেছিলেন রোবের্তো দোনাদোনি। ফ্রান্সের কাছে হারের পর যিনি আর হারেননি বাছাইপর্বে।

    গত দশ বছরে তারপর একে একে কোচ পাল্টেছে আজুরি-দের। লিপ্পি ফিরে এসেছিলেন আবার, ২০১০ বিশ্বকাপের জন্য। তারপর সিজার প্রানদেলি, ২০১২ ইউরো ও ২০১৪ বিশ্বকাপে। আন্তোনিও কোন্তের প্রশিক্ষণে ২০১৬ ইউরো। এখন কোন্তে চলে এসেছেন চেলসিতে। আর ইতালির ম্যানেজারের দায়িত্বে জিয়ামপিয়েরো ভেনতুরা। কিন্তু, বাছাইপর্বে হারানো যাচ্ছে না ইতালিকে!

    দশ বছরে ৫৩ ম্যাচ টানা অপরাজিত আছে ইতালি, বিশ্বকাপ ও ইউরোর বাছাইপর্ব মিলিয়ে! জিতেছে ৩৯ ম্যাচে, ড্র ১৪।

    স্পেনের বিরুদ্ধে দানিয়েল দে রোসির পেনাল্টি রেকর্ড অক্ষুণ্ণ রেখেছিল দিন তিনেক আগেই। ম্যাসিডোনিয়াও চেষ্টা করেছিল সেই রেকর্ড ভাঙার। কিন্তু সিরো ইমমোবিলের জোড়া গোল শেষ পর্যন্ত জিতিয়েই দিল আজুরিদের, ৯২ মিনিটে। ৩-২ জিতে ইউরোপ থেকে বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে গ্রুপ জি-তে এখন স্পেনের পর দ্বিতীয় স্থানে ইতালি, স্পেনের সমান ৭ পয়েন্ট নিয়ে, গোল পার্থক্যে পিছিয়ে থেকে।

    স্পেন উঠে এল শীর্ষস্থানে, আলবানিয়াকে হারিয়ে। দেল বস্কের দুর্দান্ত সফল দিনগুলোর পর স্পেনের দায়িত্বে এসেছেন খুলেন লোপেতেগি। ইতালি যদি ইউরো ও বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব মিলিয়ে ৫৩ ম্যাচে অপরাজিত থাকে, স্পেন বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে অপরাজিত আছে ৫৬ ম্যাচে! লোপেতেগির স্পেনও পজেশন-ভিত্তিক ফুটবলই খেলছে। আলবানিয়া প্রথমার্ধে আটকে দিলেও দিয়েগো কোস্তা ৫৫ মিনিটে গোল পাওয়ার পর নোলিতো গোল ৬৩ মিনিটে। ১১-১ গোল পার্থক্য নিয়ে ইতালিকে (৭-৪) পেছনে ফেলে রাশিয়ার দিকে জোরকদমে এগোচ্ছে স্পেন এখন।

    গ্রুপে ১০ ম্যাচের খেলায় যদিও ৩টি করে ম্যাচ হয়েছে সবে, স্পেন আর ইতালিকে প্রথম দুটি স্থান থেকে সরিয়ে দেওয়া প্রায়-অসম্ভব আলবানিয়া, ইজরায়েল, ম্যাসিডোনিয়া ও লিচেনস্টাইনের!

    No comments