• Breaking News

    কলকাতার বিরুদ্ধে আজ ‘অনুপ্রাণিত’ দিল্লি!

    আইএসএল মিডিয়া রিলিজ

    delhiatk-12-1478952560

    দিল্লির ইতালীয় কোচ জিয়ানলুকা জামব্রোতা মেনে নিয়েছেন, আতলেতিকো দে কলকাতার বিরুদ্ধে রবিবার ঘরের মাঠ জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়ামে খেলার আগে দলের ফুটবলাররা বিশেষভাবে অনুপ্রাণিত।

    তৃতীয় হিরো ইন্ডিয়ান সুপার লিগে এই মুহূর্তে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে দিল্লি ডায়নামোস। কলকাতার বিরুদ্ধে তিন পয়েন্ট পেলে দ্বিতীয় স্থানে থাকা দলের সঙ্গে তখন ব্যবধান হবে চার পয়েন্টের। শুধু তাই-ই নয়, এই মরশুমে আতলেতিকো দে কলকাতাই একমাত্র দল যাদের কাছে হেরেছে দিল্লি।

    ‘প্রতিশোধের কথা মাথায় নেই। বেশ ভাল খেলা হয়েছিল এবং ভাল দলের কাছেই হেরেছিলাম। যেহেতু হেরেছিলাম, সেই কারণেই কলকাতাকে নিয়ে বিশেষভাবে ভাবতে হচ্ছে। আলাদা করে মনঃসংযোগের চেষ্টা করছি সবাই, বিশেষ করে এই ম্যাচটা নিয়েই,’ ম্যাচের আগের দিন সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন জামব্রোতা।

    তৃতীয় আইএসএল-এ দিল্লি-ই এখন একমাত্র দল যারা ঘরের মাঠে একটিও ম্যাচ হারেনি। শেষ ম্যাচে গতবারের চ্যাম্পিয়ন চেন্নাইয়িনকে নিজেদের মাঠে ৪-১ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছে। ১৬ গোল করেছে মোট, তার ১১টিই এই মাঠে। এখানেই শেষ নয়, ঘরের মাঠে মোট ৯ পয়েন্ট পেয়েছে তারা, আর কোনও দল যা পায়নি এবারের আইএসএল-এ।

    দিল্লির সাফল্যের অন্যতম প্রধান কারণ মার্সেলিনহো, রিচার্ড গ্যাডজে, প্লোরেন্ত মালুদা ও কিন লুইসের গোল করার ক্ষমতা। এবারের আইএসএল-এ তারাই একমাত্র যাদের দলে তিনজন ফুটবলার তিন বা তার বেশি সংখ্যক গোল করেছেন। মার্সেলিনহোর ৫ গোল, গ্যাডজের ৩, লুইসেরও ৩। ছন্দে আছেন স্ট্রাইকাররা, পরিষ্কার।

    জামব্রোতা অবশ্য ব্যক্তিগত পারফরম্যানসের প্রশংসা না করে দলের কথাই বলেছেন বারবার, আশা করেছেন, আরও উন্নতির জায়গা আছে।

    ‘দুই বা তিনজনের পারফরম্যান্সে নয়, দলের পারফরম্যান্সেই খুশি। প্রত্যেকে আন্তরিকভাবেই পরিশ্রম করছে। খুশি অবশ্যই, কিন্তু তা বলে আরও উন্নতির আশা করব না কেন। পরিশ্রম করে গেলে প্রতিদিনই উন্নতি সম্ভব, আরও এগিয়ে যাওয়াও সম্ভব,’ বলেছেন ইতালির হয়ে বিশ্বকাপজয়ী জামব্রোতা।

    আতলেতিকো দে কলকাতা এই ম্যাচে খেলতে আসছে আগের ম্যাচে অত্যন্ত হতাশাজনকভাবে এফসি পুনে সিটির কাছে শেষ মুহূর্তে গোল খেয়ে, হেরে। কোচ হোসে মোলিনা খেলার ফলে একেবারেই খুশি হতে পারেননি, হওয়া সম্ভবও নয়। কিন্তু, এই ম্যাচের পর যথেষ্ট সময় পেয়েছেন নিজেদের গুছিয়ে নেওযার।

    ‘পুনের কাছে হারটা দলের পক্ষে ভাল হয়নি, কিন্তু ফুটবল তো এমনই। সবাই জানি, প্রত্যেকটা ম্যাচই আলাদা। এই সপ্তাহে আমরা অনুশীলন করেছি দিল্লির ম্যাচ মাথায় রেখে, প্রস্তুত করেছি নিজেদের। জানি, বেশ কঠিন ম্যাচ হবে। দিল্লি এখন শীর্ষে আছে, হয়ত ওরাই এই লিগের সেরা দল। কিন্তু আমরা তৈরি হয়েই এসেছি, দিল্লির মাঠে দিল্লির বিরুদ্ধে লড়াই করব বলে,’ জানিয়েছেন মোলিনা।

    কলকাতার স্পেনীয় কোচ আশা করছেন, তাঁর স্ট্রাইকাররা এবার গোল করতে শুরু করবেন আবার। বিশেষ করে ইয়াইন হিউম, আইএসএল-এর ইতিহাসে ১৯ গোল নিয়ে যিনি আছেন সবার ওপরে। এই মরশুমে তিন গোল করেছেন হিউম, তিনটেই পেনাল্টি থেকে। কিন্তু ২০১৫-র আইএসএল-এ ১১ গোলের ছন্দ এখনও দেখাতে পারেননি হিউম।

    No comments