• Breaking News

    নতুন জমানায় টানা দ্বিতীয় জয়, তৃতীয় ইস্টবেঙ্গল

    শান্তনু ব্যানার্জি


    কুপারেজে মুম্বই এফসিকে ৪-০ উড়িয়ে নিজেদের আই লিগ অভিযান শেষ করল ইস্টবেঙ্গল। প্লাজার গোলে ফিরে আসা নিঃসন্দেহে লালহলুদ শিবিরের কাছে বড় প্রাপ্তি। শনিবার মুম্বই-এর বিরুদ্ধে একটি করে গোল করেছেন বিকাশ জাইরু এবং ওয়েডসনও।

    ১৮ ম্যাচে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় তিন নম্বরে শেষ করল ইস্টবেঙ্গল। তৃতীয়, কারণ, মোহনবাগান রবিবার শেষ ম্যাচে হারলেও ৩৩ পয়েন্টেই থাকবে এবং মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে থাকায় দ্বিতীয়ই হবে।

    মুম্বই-এর বিরুদ্ধে শুরু থেকেই রবার্ট, লোবো, রাওলিন বর্জেসরা ইতিবাচক ফুটবল খেলে দাপটের সঙ্গে একের পর এক আক্রমণের ঝড় তোলে। অস্কার ব্রুনোর মুম্বই এফসি তখন দিশেহারা। যার ফলেই চার গোলের বিরাট ব্যবধানে জয়, অ্যাওয়ে ম্যাচে। জোড়া গোল পেয়ে প্লাজা শেষ করলেন মোট ৯ গোল নিয়ে।

    কিন্তু, এমন সময় এই জোড়া-জয় যা খেতাবি যুদ্ধে কোনও প্রভাবই ফেলল না! চার্চিল ব্রাদার্স ও ডিএসকে শিবাজিয়ান্সের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে দুটি ম্যাচে ট্রেভর জেমস মর্গ্যানের দল যদি এমন খেলতে পারত - অ্যাওয়ে ম্যাচে চেন্নাইয়ের কাছে হার সত্ত্বেও - ১৪ বছরের খরা মিটতেও পারত হয়ত। খেতাবি লড়াই থেকে ছিটকে যাওয়ার কারণ ডার্বিতে হার নয়, চার্চিল ও শিবাজিয়ান্সের কাছে ঘরের মাঠে হার, সন্দেহ নেই।

    মুম্বই-এর ঘরের মাঠে, আর নিজেদের মাঠে মিনার্ভা এফসির বিরুদ্ধে জয় – নতুন কোচরা আসার পর শেষ দুই ম্যাচে ৬ পয়েন্ট, তলানিতে চলে যাওয়া মনোবল ফিরিয়ে আনতেও পারে লালহলুদ ফুটবলারদের। ফেডারেশন কাপের আগে যা নিঃসন্দেহে অনেকটাই চাঙ্গা করে তুলবে ইস্টবেঙ্গলকে।

    এএফসি কাপে জায়গা পেতে এখন ভাস্কর-মনোরঞ্জন-তুষার-রঞ্জনদের ইস্টবেঙ্গলের সামনে একটাই উপায় – কটকে আগামী মাসে ফেডারেশন কাপ জয়!

    গতবারের চ্যাম্পিয়ন বেঙ্গালুরু এফসি শেষ করল ৩০ পয়েন্টে, চতুর্থ হয়ে। চার্চিল ব্রাদার্সকে ঘরের মাঠে শেষ ম্যাচে হারাল ৩-০। গোল করলেন লালিমপুইয়া, উদান্ত সিং ও মন্দার দেশাই।

    No comments