• Breaking News

    গোল পেলে উৎসব করবেন কিনা নিশ্চিত নন জেজে

    চাপে আইজলই, বলছেন সঞ্জয়, ‘মাস্ট-উইন ম্যাচ ওদের’


    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক


    মহারণ, মোহনবাগানের কাছে। জিতলে ট্রফি নিশ্চিত। ড্র করলেও সুযোগ থাকবে শেষ ম্যাচে ঘরের মাঠে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে জিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার। হারলে আবারও ফিরে আসতে হতে পারে ট্রফির কাছাকাছি পৌঁছেও। ঠিক যেমন হয়েছিল গতবার।

    সবুজমেরুন শিবিরে তাই তৃতীয় ‘অপশন’-এর কোনও অস্তিত্বই নেই। জিততেই হবে, নিদেনপক্ষে ড্র।

    ২২ এপ্রিল শনিবার আইজলের ঘরের মাঠে আইজলের বিরুদ্ধে খেলতে নামার চব্বিশ ঘন্টা আগে সাংবাদিক সম্মেলনে এসে মোহনবাগান কোচ জানিয়ে দিলেন, ‘গত বছর কিন্তু আমি টেকনিক্যাল এরিয়ায় থাকতে পারিনি।’ তিনি তখন নির্বাসিত ছিলেন। আর, পাহাড়ে লাজং-আইজল, পাহাড়তলিতে ইস্টবেঙ্গলের কাছে হেরে খেতাবি দৌড় থেকে ছিটকে যেতে হয়েছিল মোহনবাগানকে।

    সঞ্জয় এবং মোহনবাগানকে ভরসা দিচ্ছে অবশ্য রেকর্ডই। ‘দু-বছর আগে যখন চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম, অ্যাওয়ে ম্যাচেই নিশ্চিত হয়েছিল খেতাব’, জানাতে দ্বিধাহীন মোহনবাগানের বাঙালি কোচ। এবার অ্যাওয়ে ম্যাচ থেকে মাত্র ১১ পয়েন্ট পেয়েছে মোহনবাগান, যা নিয়ে মাথা ঘামাতেই রাজি নন তিনি।

    ‘চার্চিলের ঘরের মাঠে গিয়ে আইজল হারিয়েছিল ওদের। এবার তো ঘরেই খেলবে। বাড়তি উদ্দীপ্ত থাকবে নিশ্চিত। আমাদেরও তৈরি থাকতে হবে।’

    তাদের বিপক্ষেরও একই অবস্থা। ঘরের মাঠে ৮ ম্যাচে ২২, অ্যাওয়ে ম্যাচে ১১ পয়েন্ট। কলকাতায় ঘরের মাঠে মোহনবাগান জিতেছিল, এবার আইজলের ঘরের মাঠে, যেখানে খালিদ জমিলের দল অপ্রতিরোধ্য থেকেছে গত ৮ ম্যাচে।

    সঞ্জয় অবশ্য চাপ বাড়ানোর খেলাতেও থাকলেন। ‘ফেভারিট? আমরা কেন? নিজেদের মাঠে খেলবে আইজল, চাপ ওদেরই বেশি। ওদের কাছে মাস্ট-উইন ম্যাচ, আমাদের নয়।’

    মিজোরাম জুড়ে ম্যাচ নিয়ে বিপুল উৎসাহ। পরিবেশের প্রশংসাও করলেন বাগান-কোচ। এমন পরিবেশে খেলেই তো আনন্দ, মনে করছেন।

    মোহনবাগানের অন্যতম ভরসা জেজে লালপেখলুয়া মিজোরামেরই ছেলে। অথচ, আইজলের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ তিন গোল আছে তাঁর। বাগান-কোচ জানিয়ে দিয়েছেন, ‘জেজে খেলবে।’ আর জেজে নিজে জানিয়ে দিলেন, ‘ম্যাচটা সহজ হবে না।’

    আন্তর্জাতিক ক্লাবস্তরে এখন যা হচ্ছে, পুরনো ক্লাবের বিরুদ্দে গোল করে কেউই আর উৎসবে মেতে উঠছেন না। আইজলের বিরুদ্ধে গোল পেলে কি জেজেও হাঁটবেন একই পথে? জেজে জানালেন, ‘এখনই বলতে পারছি না। বলা কঠিন কী করব মাঠে তখন! মা-বাব মাঠে থাকবেন। আমি খেলছি যখন, মোহনবাগানকেই সমর্থন করবেন, নিশ্চিত!’

    দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের মুখ এখন আইজল, মেনে নিলেন সঞ্জয় সেনও। ‘আগে মণিপুর ছিল, এখন মিজোরাম উঠে এসেছে সেই জায়গায়।’

    গত বছর যে দল অবনমনে ছিল এবার সেই দল খেতাবি দৌড়ে, আইজলের ক্ষেত্রে এর চেয়ে বড় মোটিভেশন আর কিছুই বোধহয় হতে পারে না!

    No comments