• Breaking News

    কোহলি: বিশ্বকাপের চেয়েও বেশি কঠিন চ্যাম্পিয়নস ট্রফি

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক


    [caption id="attachment_3679" align="alignleft" width="1079"] চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে খেলতে লন্ডনে উড়ে যাওয়ার আগে শচীন তেন্ডুলকারের আমন্ত্রণে শচীনেরই জীবন নিয়ে তৈরি নতুন সিনেমা দেখে গেলেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। ছবি - ইন্টারনেট[/caption]

    চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে কোনও ছাড়াছাড়ি নেই। ট্রফি ধরে রাখতে ভারত নির্মম পেশাদারি মনোভাবই দেখাবে। ইংল্যান্ডে যাওয়ার আগে পরিষ্কার জানিয়ে গেলেন ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলি। ১ জুন থেকে ইংল্যান্ডে শুরু হচ্ছে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। দল ইংল্যান্ডে রওনা হওয়ার আগে সাংবাদিক বৈঠকে এই মন্তব্য করে গেলেন বিরাট।

    খেতাব ধরে রাখার ব্যাপারে ভারতীয় ক্রিকেট দলের রেকর্ড মোটেই ভাল নয়। এ-পর্যন্ত আইসিসি আয়োজিত প্রতিযোগিতায় ৫ বার জিতেছে ভারত। এর মধ্যে ২০০২-এ জিতেছিল শ্রীলঙ্কার সঙ্গে যৌথভাবে। তবে প্রতিবারই খেতাব ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়েছে ভারতীয় দল। এবার চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নামার আগে লের ক্রিকেটারদের তাই কোহলির বার্তা, ‘ক্রিকেট উপভোগ করো, তবে ম্যাচের ব্যাপারে নির্মম হয়েই!’

    ‘খেতাব ধরে রাখার লড়াইয়ে নামছি, এই চিন্তা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলতে হবে। এটাই প্রথম চ্যালেঞ্জ। গতবার ইংল্যান্ডে গিয়েছিলাম তরুণ দল হিসাবে। তখন খেলাটা উপভোগ করতে চেয়েছিলাম। শেষ পর্যন্ত আমরা টুর্নামেন্ট জিতি এবং এমন একটা টিম তৈরি করি যা এখনও পর্যন্ত বেশ ভালই খেলে এসেছে। তবে কিছু বদলও হয়েছে,’ সাংবাদিক বৈঠকে বলেছেন কোহলি।

    তাঁর প্রতিক্রিয়া, ‘সব সময়ই নির্মম হওয়ার কথা বলে থাকি। সম্ভব হলে, কোনও ম্যাচ না হেরে কিংবা ড্র না করেই আমরা সিরিজ জিততে চাই। এগোতে চাই এই মনোভাব নিয়েই। আর এভাবে ভাবতে পারলেই আমরা প্রত্যাশিত ফল পাব।’

    ২০১৩য় চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জিতেছিল ভারত। তখন এই ট্রফির ভবিষ্যৎ ছিল অস্পষ্ট। ভাবা হচ্ছিল আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের কথা। চার বছর কেটে গেল দেখতে দেখতেই। টিকে রয়েছে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। কোহলির মতে, ‘ক্রিকেট প্রশাসকরা যা-ই বলুন, প্লেয়ারদের কাছে এই টুর্নামেন্ট ওয়ার্ল্ড কাপের চেয়েও কঠিন। সময় কম, খেলে বিশ্বের সেরা ৮টা টিম। তাই এখান প্রতিদ্বন্দ্বিতা তীব্রতর। প্রথম দিন থেকেই সেরা ফর্মে থাকতে হবে। তা না হলেই বিপদ। এটাই চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।’

    নিউজিল্যান্ড ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ওয়ার্ম আপ ম্যাচের পর, ভারতকে ৪ জুন নামতে হবে চির প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিরুদ্ধে, প্রথম ম্যাচে। খেলা বার্মিংহ্যামে। তবে কোহলির মনে হচ্ছে না, এর জন্য আলাদা প্রস্তুতির দরকার আছে। ‘ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ মানেই উত্তেজক। কিন্তু, যদি দু’দলের ক্রিকেটারদের কাছে জানতে চান, সবাই বলবে, আর পাঁচটা ম্যাচের মতোই। তবে, দর্শকদের কাছে এই ম্যাচের উত্তেজনাটাই আলাদা’, জানিয়েছেন কোহলি।

    No comments