• Breaking News

    অমিতাভ: হম উস দেশকে বাসি হ্যায় জিস দেশ মে শচীন বহতা হ্যায়

    শচীনের জীবন নিয়ে ছবি কাঁদাবে দর্শকদের, মন্তব্য ছবির প্রিমিয়ারে মুগ্ধ বিগ বি-র

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক



    শচীন: এ বিলিয়ন ড্রিমস ছবি দেখে মুগ্ধ বিগ বি। ছবি দেখার পর আবেগরুদ্ধ অমিতাভের মন্তব্য, সচিনের জীবনের ওপর নির্মিত এই ছবি দর্শকদের কাঁদাবে। বলিউড আর ক্রিকেটের জগৎকে যুগলবন্দি করে এক ছাতার তলায় এনে দিয়েছে এই ছবি। বুধবার এ ছবির প্রিমিয়ার দেখার পর অবেগে ভেসেছেন বিগ বি। তাঁর মতে, তেন্ডুলকারের মতো ক্রিকেটার যে দেশে জন্মান, সে দেশে জন্মানো একটা গর্বের ব্যাপার। গতকালই অভিষেক ও ঐশ্বর্যকে সঙ্গে নিয়ে এ ছবির প্রিমিয়ার দেখেছেন ভারতের চলচ্চিত্র জগতের এই লেজেন্ড। শুধু শচীনের জীবন কাহিনীতেই নয়, এই ছবির বার্তাতেও মুগ্ধ বিগ বি।
    অবেগতাড়িত অমিতাভের মন্তব্য, “শচীনের জীবন কাহিনি তো আছেই। পাশাপাশি এটা একটা আবেগে ভরপূর ছবি। এই অসাধারণ ছবিটি ভারতের অহংকার। শচীনকে বলেছি, দেশের সব মানুষকে এ ছবি দেখানো উচিত। দেশের সব স্কুলে এ ছবি দেখানো উচিত। এজন্য নয় যে আমরা ওঁর জন্য গর্বিত, এজন্য যে এই দেশকে উনি কতটা গর্বিত করেছেন। ছবিটা হওয়ায় আমি অত্যন্ত আনন্দিত। শচীনের জীবনী আমরা সবাই জানি। তবে এই ছবি সারা পৃথিবীকে দেখিয়েছে একজন মানুষ একটা সামান্য জায়গা থেকে লড়াই শুরু করে একটা গোটা দেশকে কীভাবে গর্বিত করে তুলতে পারে।'
    বৃহস্পতিবার সকালেই শচীন ও অঞ্জলির সঙ্গে তোলা তাঁর কয়েকটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন অমিতাভ। এরপরেই লিখেছেন, গতরাতে শচীন- এ বিলিয়ন ড্রিমস ছবিটা দেখলাম, অহংকার আর আবেগে ভেসে গিয়েছি। রাজ কাপুরের অন্যতম সেরা ছবি 'জিস দেশ মে গঙ্গা বহতি হ্যায়'-এর জনপ্রিয় গানের অণুকরণে বলেছেন, 'হম উস দেশকে বাসি হ্যায় জিস দেশ মে শচীন বহতা হ্যায়'।
    প্রিমিয়ারের জায়গাটাও সাজানো হয়েছিল দারুণভাবে।  চারপাশে ছিল এলসিডি স্ক্রিন। তাতে চলছিল শচীনের পারফরম্যান্সের বাছাই করা মুহূর্তের ছবি। সামনে রাখা ছিল শচীনের স্বাক্ষরু এনগ্রেভ করা একটা ক্রিকেট ব্যাট।
    জেমস আরস্কিন নির্দেশিত এই ছবি হলে রিলিজ করবে, শুক্রবার, ২৬ মে।

    No comments