• Breaking News

    বি-স্যাম্পল জমা দিলেন না সুব্রত

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক


    আত্মপক্ষ সমর্থনে মরিয়া সুব্রত পাল মূত্রের বি-স্যাম্পল জমা দিলেন না। অর্জুন পুরস্কার জয়ী সুব্রত দ্বিতীয়বার নমুনা দেওয়ার জন্য দিল্লিতে নাডা সদর দফতরে হাজির হননি। মনে করা হচ্ছে শুধু প্রথম নমুনার ভিত্তিতেই তিনি আত্মপক্ষ সমর্থনের চেষ্টা করবেন। সোমবারই ছিল বি-স্যাম্পল জমা দেওয়ার শেষ দিন।

    তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ থেকে মুক্তি পেতে ন্যাশনাল অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির (নাডা) বিশেষ প্যানেলের মুখোমুখি হয়ে আত্মপক্ষ সমর্থনে সওয়াল করবেন সুব্রত। চেষ্টা করবেন তিনি দোষী নন তা প্রমাণ করার। প্রথম নমুনার ফল ইতিবাচক হলে বি-স্যাম্পল পরীক্ষা জরুরি ছিল। সাধারণত একজন নিরপেক্ষ পর্যবেক্ষকের উপস্থিতিতে বি-স্যাম্পল পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু, সুব্রত যেহেতু আগেই ওষুধ নেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন ভারতীয় দলের চিকিৎসককে এবং সেই চিকিৎসকও স্বীকার করেছেন তা, সুব্রত চেষ্টা করছেন ওই প্রথম নমুনার ভিত্তিতে পাওয়া ফলের ওপরই নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে।

    প্রসঙ্গত, টারবুটালিন ড্রাগ ব্যবহারের জন্য ভারতের জাতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক ও গোলকিপারকে ইতিমধ্যেই সাসপেন্ড করা হয়েছে। ফার্মোকোলজিতে টারবুটালিনকে বলা হয় ‘বেটা ২ অ্যাগনিস্ট’। হাঁপানি ও শ্বাসকষ্টে তাৎক্ষণিক আরামের জন্য এই ওষুধ ব্যবহার হয়। তবে ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির (ওয়াডা) নিষিদ্ধ ঘোষিত ওষুধের তালিকায় টারবুটালিন আছে। পেশিতে রক্ত সংবহনের গতি বাড়িয়ে এই পদার্থটি অ্যাথলিটদের পারফরম্যান্স আরও ভাল করতে সাহায্য করে। সাধারণত ওষুধটা ইনহেল করা হয়। তবে সুব্রত এটা ব্যবহার করেছিলেন কাশির সিরাপের মাধ্যমে।

    No comments