• Breaking News

    ভারতের হয়ে খেলতে ইংল্যান্ডের পাসপোর্ট ছাড়তেও রাজি ড্যানি

    রাইট স্পোর্টস ডেস্ক


    ইংলিশ ফুটবল ক্লাব উলভারহ্যামটন ওয়ান্ডারার্সের অধিনায়ক ড্যানি তনবীর বাথ খেলতে চান ভারতের জাতীয় দলের হয়ে। সেজন্য ব্রিটিশ পাসপোর্ট ছেড়ে দিতেও রাজি তিনি।

    ২০১৯-এর এশিয়ান কাপের যোগ্যতা বাছাই পর্বের শিবির কয়েকদিনের মধ্যেই শুরু হবে মুম্বইয়ে। তার আগেই ড্যানি দেখা করেছেন ভারতীয় দলের চিফ কোচ স্টিফেন কনস্টানটাইনের সঙ্গে। ২৬ বছরের ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই প্লেয়ার জায়গা চান জাতীয় দলে।

    আন্তর্জাতিক ম্যাচে জাতীয় দলে ভারতীয় বংশোদ্ভূত যোগ্য বিদেশি প্লেয়ারদের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই ভাবনাচিন্তা করছেন কনস্টাইন। তবে এ ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে সরকারি আইন। সরকারি নিয়ম হল এসব ক্ষেত্রে দ্বৈত নাগরিকত্ব চলবে না। জাতীয় দলের হয়ে খেলতে হলে বিদেশি পাসপোর্ট ছেড়ে শুধুমাত্র ভারতীয় পাসপোর্ট নিতে হবে। তাছাড়া সম্ভাব্য প্লেয়ারকে নাগরিকত্বের দাবি পেশের আগে ১ বছর ভারতে থাকতে হবে।

    ভারতের হয়ে খেলার জন্য ব্রিটিশ পাসপোর্ট ছাড়তে রাজি বাথ। কনস্টানটাইনকে তিনি জানিয়েছেন, ' উলভারহ্যামটন ওয়ান্ডারার্সকে আমার কথা দেওয়া আছে। ইংল্যান্ডে আমি পেশাদার ফুটবল খেলি। তাই ভারতে থাকতে পারব না।'

    বাথের বাবা পাঞ্জাবি। ১২ বছর বয়সে দেশ ছেড়েছিলেন তিনি। বাথের জন্ম ও বেড়ে ওঠা  ইংল্যান্ডের ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস কান্ট্রিতে। সেন্টার-ব্যাক বাথকে ছোট্ট বয়সেই তুলে নেয় উলভারহ্যামটন। পরে সিনিয়রদের টিমেও সুযোগ পেয়ে যান বাথ।

    ইংল্যান্ডে খেলার মাঝেমাঝেই ভারতে এসে এখানে খেলার বিষয়ে খোঁজখবর করেছেন বাথ। তবে এই প্রথম কনস্টানটাইনের সঙ্গে দেখা করে কথা বলার সুযোগ পেলেন তিনি। বাথ জানিয়েছেন, ভারতে খেলার সম্ভাবনা নিয়ে কোচের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। তাঁর মনে হয়েছে এদেশে জন্মাননি এমন যোগ্য প্লেয়ারদের দলে পেতে আগ্রহী হবেন কনস্টানটাইন। তিনি বলেন, ইংল্যান্ডের জাতীয় দলে সেন্টার ব্যাক হিসেবে তাঁর সুযোগ পাওয়া অসম্ভব নয়। তবে অন্য সম্ভাবনাও খতিয়ে দেখছেন তিনি।

    সূত্র – ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

    No comments