• Breaking News

    শিল্ড জয়ই লক্ষ্য, মহমেডানকে উড়িয়ে জানালেন রোশন

    শান্তনু ব্যানার্জি


    এআইএফএফ এলি়ট আকাদেমি-কে আটকানো যাচ্ছে না। শতাব্দী প্রাচীন আইএফএ শিল্ডে শুরু করেছিল ইস্টবেঙ্গলকে ২-১ হারিয়ে। দ্বিতীয় ম্যাচে মহমেডান স্পোর্টিংকে হারাল ৪-০। চলে গেল সেমিফাইনালে। আর দুটি ম্যাচই হেরে বিদায় নিশ্চিত মহমেডানের।

    মহমেডান মাঠে সাদা কালো ব্রিগেডকে প্রথম ধাক্কা জয়সানা সিং-এর। ম্যাচের ২ মিনিটে, ফ্রি কিক পেয়েছিল ফেডারেশনের আকাদেমি। নামগেল ভুটিয়ার ফ্রি কিক গোলপোস্টে লেগে ফিরে আসে। ফিরতি বলে গোল করেন জয়সানা।

    বিরতির পর ফেডারেশনের অনূর্ধ্ব ১৯ ফুটবলারদের আক্রমণের মুখে পড়ে মহমেডান ফুটবলাররা যেন দিশাহারা। অযথা বেশি রক্ষণাত্মক ফুটবলের খেসারত দিতে হয় মহমেডানকে। জোড়া গোল করে ফেলেন নৌরম রোশন সিং। যদিও রোশনের প্রথম গোল নিয়ে বিতর্ক থাকছেই। অফসাইড মনে করে মহমেডান ফুটবলাররা দাঁড়িয়ে পড়েছিলেন। আকাদেমির চতুর্থ গোল লালনুনটলাঙ্গার।

    ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর ভক্ত রোশন বলেছেন, ‘ইস্টবেঙ্গল, মহমেডানকে হারানোর পরেও আত্মতুষ্টির কোনও জায়গা নেই। প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হতে চাই। তাই পরের পাঠচক্র ম্যাচ নিয়েই আপাতত ভাবনা।’

    ভারতীয় ফুটবলারদের মধ্যে সুনীল ছেত্রীর ভক্ত রোশনকে নিয়ে উচ্ছ্বসিত অন্যান্য ফুটবলারেরা। মহমেডানের কোচ সুশান্ত গুহ বলেছেন, ‘অসম লড়াই ছিল। এআইএফএফ এলিট আকাদেমির ফুটবলাররা দেশের ভবিষ্যৎ। প্রথমার্ধে ছেলেরা লড়েছিল। বিরতির পর দাঁড়িয়ে পড়ে, অভিজ্ঞতার অভাবে।’

    অন্যদিকে কলকাতা লিগের জন্য মহমেডানের নতুন কোচ বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য ১৯ জুন থেকে দলের অনুশীলন শুরু করবেন সেন্ট্রাল পার্কে।

    No comments