• Breaking News

    শ্রীকান্ত, সিন্ধুর নতুন চ্যালেঞ্জ, আজ শুরু অল ইংল্যান্ড

    সরাসরি সম্প্রচার
    দুপুর ২-৩০ ও বিকেল ৫-৩০


    (স্টার স্পোর্টস ৪ এবং স্টার স্পোর্টস এইচডি ৪)


    শুভব্রত মুখার্জী


    প্রকাশ পাড়ুকোন চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন ১৯৮০ সালে। তার ২১ বছর পর পুল্লেলা গোপীচাঁদ। মাঝে ১৭ বছরের খরা। ভারতীয় ব্যাডমিন্টন কি আবার শীর্ষে উঠে আসবে ২০১৮-র অল ইংল্যান্ড ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায়?

    এই মুহূর্তে ভারতীয় ব্যাডমিন্টন নিয়ে আশার আলো। অল ইংল্যান্ড ওপেন ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপকে বলা হয় ব্যাডমিন্টনের উইম্বলডন। সেখানে পুরুষদের তৃতীয় বাছাই কিদম্বি শ্রীকান্ত, মেয়েদের চতুর্থ বাছাই পুসারলা বেঙ্কট সিন্ধু। মেয়েদের মধ্যে আছেন গোপীচাঁদেরই আর এক ছাত্রী সাইনা নেহওয়াল, যিনি ২০১৫ সালে খেলেছিলেন ফাইনালে, হেরেছিলেন স্পেনের কারোলিনা মারিনের কাছে। আর ছেলেদের মধ্যে শ্রীকান্তের পাশাপাশিই খেলবেন এইচএস প্রণয়, বিএস প্রণীতও।

    আশার কথা আরও, শ্রীকান্ত এবং সিন্ধুর প্রথম রাউন্ডে তুলনায় সহজ প্রতিপক্ষের সঙ্গে খেলা। ভারতের এক নম্বর পুরুষ তারকাকে খেলতে হবে ফরাসি ব্রাইস লেভেরদেজের বিরুদ্ধে। আর সিন্ধুর সামনে পর্নপাউই চোচুওং। কোয়ার্টার ফাইনালে নোজুমি ওকুহারার মুখোমুখি হতে পারেন সিন্ধু, যদি প্রথম দুটি রাউন্ড পেরিয়ে আসেন দুজনেই। গত বছর চারটি সুপার সিরিজ জিতে দুর্দান্ত ছন্দে আছেন শ্রীকান্তও। কোয়ার্টার ফাইনালের আগে তাঁকেও শীর্ষ আট বাছাইয়ের কারও বিরুদ্ধে খেলতে হবে না সম্ভবত।

    সাইনার কাজটা কঠিন। প্রথম রাউন্ডের শীর্ষবাছাই এবং মেয়েদের এক নম্বর তাই জু ইংয়ের বিরুদ্ধে খেলতে হবে তাঁকে, যাঁর বিরুদ্ধে সাইনার রেকর্ড ৫-৯। তার চেয়েও বড়, শেষ সাতবারই হেরেছেন তাই-এর কাছে। গোপীচাঁদের কাছে ফিরে আসার পর অল ইংল্যান্ডে শুরুতেই অঘটন ঘটাতে পারেন কিনা সাইনা, দেখতে আগ্রহী ভারতের ব্যাডমিন্টনপ্রেমীরা। প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে সাইনা এবং সিন্ধু দুজনেই হেরে গিয়েছিলেন কোয়ার্টার ফাইনালে।

    ইংল্যান্ডের বার্মিংহ্যামে বার্কলে ইয়ার্ড এরিনাতে ১৪-১৮ মার্চ প্রতিযোগিতা। পাঁচদিনের প্রতিযোগিতায় পুরুষ এবং মহিলা বিভাগের মোট পুরষ্কারমূল্য ৬ লক্ষ মার্কিন ডলার।

    No comments